সেই ডিসিকে ক্ষমা করতে পারেন, অথচ আইন করতে পারবেন না: নুরুল হক নুর

আগামী দ্বাদশ নির্বাচনকে ঘিরে রাজনৈতিক মাঠে বেশ সরব হয়েছে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল গুলো। বর্তমান সময়ে

দেশের সরকারের দায়িত্ব পালন করছে আওয়ামীলীগ দল। এই দলটি জানিয়েছে আগামী দ্বাদশ নির্বাচন সার্চ কমিটি গঠনের মধ্যে

দিয়ে অনুষ্ঠিত হবে। এই বিষয়ে অন্যান্য অনেক রাজনৈতিক দল গুলো দ্বিমত জানিয়েছে। সম্প্রতি এই প্রসঙ্গে

বেশ কিছু কথা জানালেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব ও

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, আমরা মৃ/ত্যু/কে আলিঙ্গন করতে রাজপথে নেমেছি। জনগণের

অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে প্রয়োজনে জীবন দেব। শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক বি/ক্ষো/ভ সমাবেশ থেকে এসব কথা বলেন নুর। এ সময় তিনি আরও

বলেন, ছাত্রদের ঢাকা থেকে শুরু করে সারা দেশে হাফভাড়া কার্যকর করতে হবে। ছাত্র আন্দোলনের একজন নেতা কর্মীকেও

হয়রানি করা যাবে না। যদি হয়রানি করা হয়, মামলা দেওয়া হয় তবে তার জবাব আমরা রাজপথে এসে দেব। বি/ক্ষো/ভ সমাবেশ নুর বলেন, তেলের বর্ধিত দাম কমাতে হবে।

আপনারা ভাবছেন এখানে দাঁড়িয়ে শুধু বক্তব্যই দিয়ে যাচ্ছি, কিন্তু আপনারা আমলে নিচ্ছেন না। কিভাবে আমলে নিতে হয় সেটাও কিন্তু আমাদের জানা আছে। নুর বলেন, সরকার ২০১১ সালে পঞ্চদশ সংশোধনী করেছিল মাত্র ৯ দিনের ব্যবধানে।

মধ্যরাতে কোর্ট বসিয়ে সাংবাদিককে সাজা দিতে পারেন। সেই নি/র্যা/ত/ন/কারী ডিসিকে রাষ্ট্রপতি ক্ষমা করতে পারেন। আর জনগণের জন্য আইন করতে পারবেন না।

মশকরা করেন জনগণের সঙ্গে? আপনাদের দাঁত কেলানি অনেক দেখেছে জনগণ, এবার কিন্তু দাঁত তুলে ফেলবে। সমগ্র দেশ জুড়ে কোঠা আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে আলোচনায় উঠে এসেছেন নুরুল হক নুর। এমনকি তিনি সম্প্রতি “গণঅধিকার পরিষদ” নামে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেছেন। এবং তিনি জানিয়েছেন আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.