৯৪ বছর বয়সে বিয়ের করার সখ পূরণ করলেন এই বৃদ্ধার- ভিডিও!

গায়ের রঙ কালো হওয়ার কারণে দেওয়া হয়নি বিয়েতে গাউন। তাই সেই অপূর্ণ স্বপ্ন পূরণ হয়েছে ৯৪ বছর বয়সে। এমন ঘটনা

ঘটেছে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম নিবাসী মার্থা মায় ওফেলিয়া মুন টাকারের সঙ্গে। মার্থার ছোট থেকেই স্বপ্ন ছিল, তিনি তার বিয়েতে গাউন পরে

ছবি তুলবেন। কিন্তু ১৯৫২ সালে ২৩ বছর বয়সে হওয়া তার বিয়েতে পূরণ হয়নি সেই স্বপ্ন। কারণ তার গায়ের রঙ ছিল কালো। কিন্তু বিয়ের প্রায় ৭০ বছর পরে

এসে তার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে নাতনির উদ্যোগে। সম্প্রতি আয়নার সামনে ৯৪ বছরের সেই বৃদ্ধার সাদা গাউন পরা ভিডিও

ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সেখানে তাকে দেখে মনে হয় তিনি বিয়ের জন্য সেজেছেন। কিন্তু এতে ছিল না কোনো পাত্রপক্ষ। গাউন পরে ছবি তোলাই ছিল এ ঘটনার মূল উদ্দেশ্য। এর আগে ১৯৫২ সালে মার্থার বিয়ের সময় তিনি বিয়ের গাউন কিনতে ওয়েডিং গার্মেন্টসে গেলে তাকে দেখেই দোকান বন্ধ করে দেন দোকানের মালিক।

গায়ের রঙ কালো হওয়াই একমাত্র দোষ ছিল তার। এই একটি কারণেই সেই সময় ইংল্যান্ডে কালো চামড়ার নারীদের বিয়েতে গাউন পরতে দেওয়া হতো না। কিন্তু এখন পুরো পৃথিবীতেই অনেক পরিবর্তন এসেছে। বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আন্দোলনের ফলে আর তেমন দেখা মেলে না কালো চামড়ার মানুষদের হেয় করার ঘটনা।

এতদিনে এসে নাতনির উদ্যোগে স্বপ্নের পোশাকে সেজে অনেক খুশি হন মার্থা। ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে তিনি প্রথমে হাসতে হাসতে জানান যে, তিনি বিয়ে করতে যাচ্ছেন। তবে তার বিয়েতে কোনো পাত্রপক্ষ নেই। স্বপ্নপূরণের হাসিভরা মুখের দৃশ্য দেখে মন ছুঁয়ে গেছে ভিডিওটি দেখা দর্শকদের। এ নিয়ে সামাজিকমাধ্যমে মার্থাকে শুভেচ্ছাও জানান অনেকেই।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন>>>

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*