সিনেমার তারকা পেশা বদল করে বেগুন চাষে ব্যাস্ত অভিনেতা ফেরদৌস

বাংলা সিনেমার তারকা অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদের কৃষির প্রতি রয়েছে অগাধ পিছুটান। কারণতার দাদা কৃষিকাজ করতেন। বড় পর্দার কাজ ছেড়ে দিলে

কৃষিকাজে মনোযোগী হবেন তিনি। ফেরদৌস বলেন, অনেকেই জানেন না, আমি কিন্তু এখনও কৃষক। আমাদের বাড়ির ছাদে এমন একটাবাগান আছে, যেখানে রোজ কিছু না কিছু

উৎপাদিত হয়। আমার মায়ের বাড়ির ছাদে নানা রকম শাকসবজি জন্মে। সেদিন দেখলাম, মায়ের ছাদ বাগানে আখ হয়েছে। মা আমাকে আখ খেতে দিলেন। দেখলাম বরই হয়েছে। মায়ের বয়স আশির কোঠায়, তবু মা

এখনো সুস্থ আছেন। করোনাকালে মায়ের বেশির ভাগ সময় কেটেছে তার ছাদবাগানে। এছাড়া আমার মায়ের ঔষধির ভাণ্ডার তো আছেই।ফেরদৌস আরও বলেন, শুটিংয়ে যখন সারাদেশ ঘুরতে হয়, তখন

কোথায় কী ফল-ফসল হচ্ছে- সেসব আমি খেয়াল করি। কারণ এসবের প্রতি আমার অন্যরকম একটা আগ্রহ কাজ করে। ভবিষ্যতে যদি আমি পেশা বদল করি, তাহলে কৃষিকাজই করবো। কারণ এটাই আমাদের মূল ভিত্তি। যে মাটিতে বীজ ফেললেই সোনা হয়, সেই মাটির কাছে ফিরতে হবেই।

প্রসঙ্গত, শুধু ছাদ নয়, ঢাকার অদূরে তিনশো ফিট এলাকায় নিজের এক টুকরো জমিতে নিয়মিত চাষ করেন ফেরদৌস। নিজের জমিতে ফুলকপি, বাঁধাকপি, বেগুনসহ নানা রকম সবজি চাষ করেছেন তিনি। সেখান থেকে বাসায় আসে টাটকা সবজি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.