স্বামী রেখে বিয়ে, পরীমণিকে আইনি নোটিশ

প্রায় দশ বছর আগে বিয়ে করে স্বামীকে তালাক না দিয়ে ফের বিয়ে করার অভিযোগে চিত্রনায়িকা পরীমণির সঙ্গে

অভিনেতা শরীফুল রাজের বিয়ের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কুমিল্লার এক আইনজীবী। বিয়ের প্রমাণ চেয়ে পরীমণি-রাজকে

আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন তিনি। আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে জবাব না দিলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে নোটিশে। আগামী সাত কর্মদিবসে

নোটিশের জবাব না এলে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) কুমিল্লা জজ কোর্টের আইনজীবী জয়নাল আবেদীন মাযহারী পরীমণি ও

রাজকে পাঠানো নোটিশের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। নোটিশে বলা হয়েছে, আপনি (পরীমণি) ২০১২ সালের ২৮ এপ্রিল

১ লাখ টাকা দেনমোহরে যশোরের কেশবপুর থানার ফেরদৌস কবির সৌরভকে প্রথম বিয়ে করেন। গত ২২ জানুয়ারি

গণমাধ্যম থেকে জানতে পারি, আপনি সন্তানসম্ভবা। আপনি বলেছেন, ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর শরীফুল রাজের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী হওয়ায় আপনার অনেক ফলোয়ার রয়েছে। আপনার এমন কর্মকাণ্ডে সমাজে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে আশঙ্কা করি। নোটিশে আরও বলা হয়েছে,

প্রচলিত আইন ও ধর্মীয় আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আপনি আগামী সাত দিনের মধ্যে সৌরভের সঙ্গে তালাক কবে কোথায় হয়েছে, তা জনসমক্ষে প্রকাশ করবেন। শরীফুল রাজের সঙ্গে বিয়ের কাবিনের নকল সংযুক্ত করে নোটিশের জবাব দেবেন। অন্যথায় আমি আপনার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবো।

গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘গুনিন’ সিনেমা করতে গিয়ে দুজনের পরিচয়। তারপর প্রেম। এরপর গত ১ জানুয়ারি বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয় পরীমণি ও রাজের। যেখানে ১০১ টাকায় কাবিন করা হয়। অনাগত সন্তানের কারণে বর্তমানে শুটিং থেকে দূরে রয়েছেন পরীমণি। সন্তান জন্মদানের পর সুস্থ হয়েই কাজে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন। বর্তমানে পরী অভিনীত বেশ কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.