অবিশ্বাস্য ভাবে মাটি ফেঁটে বেড়িয়ে এল কই মাছ, নেটদুনিয়ায় তুমুল ভাইরাল ভিডিও!

ভিডিওটি একবারে নিচে দেওয়া হলো: এই সময়টায় দেশি কই মাছের আসল স্বাদ পাওয়া যায়। কই মাছ রান্না করা যায় নানা উপকরণে। এতে

স্বাদেও আসে ভিন্নতা। রেসিপি দিয়েছেন শাহানা পারভীন। কই মাছ আধা কেজি, মটরশুটি আধা কাপ, মরিচগুঁড়া ১ চা–চামচ,

হলুদগুঁড়া ১ চা–চামচ, রসুনবাটা ১ চা–চামচ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, টমেটো ১টি,

ধনেপাতা ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি, জিরাবাটা আধা চা–চামচ, লবণ স্বাদমতো ও তেল প্রয়োজনমতো মাছে হলুদ ও

লবণ মেখে হালকা করে ভেজে রাখুন। এবার একটি ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজকুচি এবং সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে কষান। কষানো হলে

মটরশুটি দিন। একটু নাড়াচাড়া করে ১ কাপ গরম পানি দিন। ফুটে উঠলে ভাজা মাছগুলো দিন। টমেটো, ধনেপাতা ও কাঁচা মরিচ দিন। ঝোল মাখামাখা হলে নামিয়ে নিন কই মাছ ৪টি, তেঁতুল (টেঙ্গা) ২ টুকরা, সরিষাবাটা ১ চা–চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা–চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা–চামচ, রসুনবাটা ১ চা–চামচ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, চিনি (ইচ্ছা) আধা চা–চামচ, ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা–চামচ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি, লবণ স্বাদমতো ও তেল প্রয়োজনমতো।

লবণ ও লেবুর রস দিয়ে মাছ মেরিনেট করে রাখুন কিছুক্ষণ। এবার সামান্য হলুদ মেখে তেলে হালকা ভেজে তুলে রাখুন। এবার ফ্রাইপ্যানে বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে একটু কষিয়ে নিন। মসলা কষানো হলে এক কাপ গরম পানি দিয়ে ভাজা মাছগুলো দিয়ে তেঁতুল, চিনি, কাঁচা মরিচ, ভাজা জিরার গুঁড়া, ধনেপাতাকুচি ছড়িয়ে একটু পর নামিয়ে নিন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*