পুরুষরাই মেয়েদের জীবন নষ্টের জন্য দায়ী: তসলিমা

সম্প্রতি কুমিল্লা আইনজীবী সমিতির সিনিয়র আইনজীবী ইসমাইল হোসেনের ৯৩ বছর বয়সে ৪০ বছরের এক নারীকে

বিয়ে করার ঘটনাটা দেশে আলোড়ন তোলে। ফেসবুকে ইতিমধ্যে তাঁর বিয়ের ছবি ভাইরাল হয়েছে। এই বিয়ে নিয়ে

ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন তসলিমা নাসরিন। নির্বাসিত এই লেখিকা ওই পোস্টে বলেন, ‘মেয়ে হয়ে জন্ম নিলে তো জীবন অপচয় অবশ্যম্ভাবী। তিনি এও বলেন, ‘পুরুষরাই

মেয়েদের জীবন নষ্টের জন্য দায়ী। ‘ তসলিমা নাসরিনের ফেসবুকের পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো- “বাংলাদেশের কুমিল্লায় নব্বই বছর বয়সী এক অবসরপ্রাপ্ত আইনজীবী

এক তরুণীকে ঘটা করে বিয়ে করেছে। এই খবরটি মিডিয়ার অনলাইন এডিশানে দেখলাম। ভেবেছিলাম মন্তব্যের কলাম বোধহয় তিরস্কার,

কটূক্তি, গালাগালির সুনামিতে ভেসে যাবে। আশ্চর্য, দেশের হাজারো সুযোগ্য সন্তান সমস্বরে আলহামদুলিল্লাহ বলছে। প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলে। একটি মেয়ের জীবন নষ্ট হচ্ছে দেখেও কারো কোনও সমবেদনা নেই। আসলে মেয়ে হয়ে জন্ম নিলে জীবনের অপচয় তো অবশ্যম্ভাবী। পরনির্ভর পরাধীন জীবন তো এক রকম নষ্টই। সে কারণেই বোধহয় কেউ সেদিকে তাকায় না। আসলে যে পুরুষেরা মেয়েদের জীবন নষ্টের জন্য দায়ী, সমাজে ‘বীর পুরুষ’ হিসেবে সে পুরুষেরাই সম্মানিত।”

এদিকে বিয়ের পর একটি ছোট অনুষ্ঠানও করেন কুমিল্লা নিবাসী ইসমাইল হোসেন। ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জন আমন্ত্রিত ছিলেন। কুমিল্লা আদালতের আইনজীবী আনিসুর রহমান মিঠু বলেন, ‘শুনেছি ইসমাইল সাহেবের জুনিয়র অ্যাডভোকেট মিতুর বাড়িতে এই বিয়ে হয়েছে। ’

আরেক আইনজীবী কাজী আসিফ বলেন, ‘তিনি এখনো আদালতে প্র্যাকটিস করেন। তাঁর স্ত্রী মারা গেছেন। একাকিত্ব থেকে মুক্তি পেতে তিনি বিয়ে করেছেন বলে শুনেছি। ’ ইসমাইল হোসেনের ছেলে জসীম উদ্দিন বলেন, ‘বাবা আবার বিয়ে করতে চলেছেন বলে আমরা কিছুই জানতাম না। শুনেছি তিনি নতুন স্ত্রী নিয়ে বাড়িতে এসেছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.