গ্রামের জঙ্গলে অ-শ্লীন ও ঘ-নিষ্ট অবস্থায় ধরা পড়লো যুবক ও মহিলা, দেখে মায়ের বয়সী যুবতীর সাথেই যুবককে বিয়ে দিয়ে দিলেন গ্রামবাসীরা, ভাইরাল ভিডিও!

একটা ছেলের প্রতি একটা মেয়ের আক-র্ষণ থাকবে এ মনটা খুব স্বাভাবিক । বিপরীত লি-ঙ্গের প্রতি একটা অনুভূতি

কাজ করে একথা আমরা সকলেই জানি এবং সেই অনু-ভূতির জন্যই সৃষ্টি হয়েছে ভালোবাসা , প্রেমের । যার ফলে

আমাদের আশেপাশের পরিবেশ এত রঙিন হয়ে উঠেছে । কিন্তু কখনও কখনও এই রঙিন পরিবেশ সাদাকালোতে পরিণত হয় যখন এই ধরনের

কাজকর্ম প্রকাশ্যে উঠে আসে । শরীরের মধ্যে যৌ-ন খি-দে যৌ-ন ভাব থাকবে এমনটাই স্বাভাবিক । এটা সুস্থ মস্তিস্কের এবং

সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের অন্যতম পরিচয় । কিন্তু কখনও কখনও এই যৌ-ন-তার এতটা পরিমাণ ভয়-ঙ্কর হয়ে যায় যে স্থান পাত্র কিছুই

তখন মাথায় থাকে না । এবং এই লাল-সার বশব-র্তী হয়ে দেশে একের পর এক অপ-রাধমূলক কাজের সংখ্যা বেড়ে চলেছে ঘটনা প্রথম নয় । এর আগে

বহুবার হয়েছে। সম্প্রতি একটি ঘটনা ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যাপক পরিমাণে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে এক যুবক এবং যুবতী ঘ-নিষ্ঠ মুহূ-র্তে তৈরি করার সময় ধরা পড়েছে গ্রামবাসীদের কাছে এবং সেই গ্রামবাসীরা কোনো রকম কোনো তর্ক বি-তর্ক এবং ঝামে-লায় না গিয়ে একে অপরের সাথে বিবাহ দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ।

এবং অবশেষে সেটি সম্পন্ন হয় । ভিডিও তে দেখা যায় যে যুবকটি রীতি-মতো কাঁদতে কাঁদতে মেয়েটির সিঁদুর পরিয়ে দিচ্ছে অর্থাৎ এই বিয়েতে তার মত নেই । কিন্তু এই ধরনের কাজকর্ম করার জন্য এবং একটি মেয়ের সর্বনাশ করার জন্য সেই মেয়ের বাকি জীবনের দায়িত্ব তাকে নিতে হবে এমনটা বক্তব্য গ্রামবাসীর।

যদিও এই ঘটনাকে অনেকে ধিক্কার জানিয়েছে । কিন্তু গ্রামবাসীর এই সিদ্ধান্তকে অনেকে সাধুবাদ জানিয়েছেন । এভাবেই যারা মেয়েদের জীবন নষ্ট করতে চাইবেন তাদের সাথে সেই মেয়ের বিয়ে দিয়ে দিতে হবে তাহলে হয়তো এই নোং-রা সমাজ কিছুটা হলেও পরিষ্কার হবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.