অভাবের তাড়নায় একসময় ঢাকা ছেড়েছিলেন পরীমনির স্বামী রাজ

মা হতে যাচ্ছেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমনি। মা হওয়ার খবর জানিয়ে হঠাৎ সবাইকে

চমকে দেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। তার সন্তানের বাবার নামও জানান তিনি। বলেন, গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘গুনিন’ ছবিতে অভিনেতা শরিফুল রাজের বিপরীতে

অভিনয় করতে গিয়ে প্রেম, প্রেমের ঠিক সাত দিনের মাথায় গেল বছরের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন তারা। পরীমনি রহস্য খোলাশা করে দিলেও

তার ভক্ত-অনুরাগীরা যেন সন্তুষ্ট হতে পারেননি। প্রশ্ন উঠেছে কে এই রাজ? সেটাই স্বাভাবিক, কারণ শরিফুল রাজ ঢাকাই

সিনেমার জনপ্রিয় সব নায়ক শাকিব, শুভ, বাপ্পী, ইমনদের মতো কেউ নন। ২০১৭ সালে তানিম রহমানের ‘ন ডরাই’ ছবিতে অভিনয় করে সিনেপ্রেমীদের

কিছুটা নজরে পড়েছেন এই অভিনেতা। ক্যারিয়ারে তার ছবির সংখ্যা মাত্র দুটি। অবশ্য ‘পরান’, ‘হাওয়া’ও ‘গুনিন’ নামে তার তিনটি ছবি এখন মুক্তির অপেক্ষায়। এছাড়া

বাংলাদেশি ওয়েব চলচ্চিত্র ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’ দিয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। জানা গেছে, একসময় র‌্যাম্প মডেল হিসেবে টুকটাক কাজ করতেন শরিফুল রাজ। পাশাপাশি

বিভিন্ন পণ্যের স্থিরচিত্রের মডেল হিসেবে কাজ করতেন। ২০১৬ সালে রেদওয়ান রনির ‘আইসক্রিম’ ছবিতে অভিনয় করে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে তার।

সিনেমায় কাজ পাওয়ার আগে স্বচ্ছল ছিলেন না শরিফুল রাজ। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার আলমপুর গ্রামের জন্ম তার। পড়াশোনার জন্য ঢাকায় এলেও অর্থ সংকটের কারণে এক বছরও থাকতে পারেননি রাজধানীতে। অভাবে পড়ে নারায়ণগঞ্জে মামার কাছে চলে যান।

অর্থের অভাবে একটা সময় লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয় তার। বন্ধুর মেসে ১৫ জনের ঠাসাঠাসি করে থেকে লেখাপড়া চালিয়ে যান।

সেসব দুঃসহ স্মৃতির কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন শরিফুল রাজ নিজেই। বললেন, ‘সে এক কঠিন সময় গিয়েছে। বন্ধুর কল্যাণে মেসে থাকার জায়গা হলো। ১৫ জন একসঙ্গে থাকি। পকেটে টাকা নেই। পড়ালেখা বন্ধ হয় হয় অবস্থা। কী করব, বুঝে উঠতে পারছিলাম না। তখন পরিবারের ওপর নির্ভরশীল হওয়ার সুযোগটাও ছিল না। দিশাহারা অবস্থা আমার।’

এমন সময় ধানমন্ডির ৮ নম্বরে আড্ডাটা সুযোগ এনে দেয় তাকে। সেখানে আড্ডার ফাঁকে বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মাণের সঙ্গে যুক্ত মানুষদের সঙ্গে খাতির হয়। কাজ পান বিজ্ঞাপনচিত্রে ‘সাইড আর্টিস্ট’ হিসেবে।

৫ মাসের গর্ভবতী হয়েও আমির খানের দাবি মেটাতে হয়েছিল কারিনার

সেই বিজ্ঞাপনচিত্রের মূল মডেল ছিলেন আরিফিন শুভ, সারিকা, নিলয়। শরিফুল রাজ ছিলেন পেছনের এক্সট্রার মতো।

শরিফুল বলেন, সেই কাজে ৮ হাজার টাকা পেয়ে আমার তো আনন্দ আর ধরে না।

এরপরই মডেলিং জগতে নিজের একটি অবস্থান গড়ে তুলেন।

২০১৫ সালে ‘আইসক্রিম’ ছবিতে অভিনয়ের ডাক পেলে র‌্যাম্প মডেলিং ও ফটোশুট ছেড়ে দেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*