দেশকে করোনামুক্ত রাখা ছাত্রলীগের প্রতিটি কর্মীর দায়িত্ব এবং কর্তব্যঃ শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, গত একদিনে প্রায় ৩০ লাখ মানুষ সারাবিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং

নতুন যে ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সেটিও ইতোমধ্যে আমাদের দেশে শনাক্ত হয়েছে। কাজেই আমাদের এখন

অত্যন্ত সতর্ক হওয়ার সময়। মনে রাখতে হবে গত বছর যখন করোনা বেড়েছে, তখন চাঁদপুর জেলা বেশি আক্রান্ত জেলার মধ্যে

একটি ছিল। আমরা তার পুনরাবৃত্তি চাই না। সারাবিশ্বে করোনা অতিমারিতে বিপর্যস্ত, কোথাও কোথাও তৃতীয় ও

চতুর্থ ঢেউ চলছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) দুপুরে চাঁদপুর হাসান আলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা ছাত্রলীগের বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন,

আজকে যে সমাবেশ এটি করোনা পরিস্থিতির মধ্যে না হলেও ভাল হত। কিন্তু আমি এটাও বুঝি ছাত্রলীগ আমাদের আবেগ ও ভালবাসার নাম। সে জন্য ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমরা সকলে একত্রিত হতে চেয়েছি। কিন্তু

মনে রাখতে হবে, করোনা অতিমারির এ সময় নিজেদেরকে, প্রিয়জনদেরকে, সঙ্গী সাথীদেরকে এবং রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে আমাদের এলাকার মানুষসহ দেশকে করোনামুক্ত রাখা ছাত্রলীগের প্রতিটি কর্মীর দায়িত্ব এবং কর্তব্য।

দীপু মনি বলেন, তোমরা নেত্রীর উন্নয়ন, শান্তি ও সমৃদ্ধির কথা। অর্থাৎ, তিনি দেশকে যে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন এবং বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় তার যে চেষ্টা, তার মানবিকতার যে নিদর্শন সে সমস্ত কথা মানুষের কাছে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিবে।

এটিও তোমাদের কাজ। আমি আশা করি আমরা সকলে মিলে এই কাজটি করব ইনশাআল্লাহ। আবারও শেখ হাসিনাকে জয়যুক্ত করে আমাদের এই উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারাকে অব্যাহত রেখে দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় রূপান্তরিত করব। রুখে দিব সমস্ত চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্র এবং স্বাধীনতা বিরোধীদের সকল অপচেষ্টা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.