বাঘের নকল পোষাক পড়ে বাঘ সেজে মহিষের পালের সামনে যেতেই ঘটল অবাক কান্ড, ভয়ে জান ছুটে পালাল ভিষন ভাইরাল সেই ভিডিও!

বিনোদন ছাড়া মানুষ বাঁচতে পারে না। বিনোদন আমাদেরকে আনন্দ দেয়, প্রফুল্ল করে এবং অবসাদ দূর করে। আমরা যখন একটি কাজ করতে করতে অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ি তখন

আমাদের বিনোদনের প্রয়োজন হয় ল। আর এই বিনোদন আমাদেরকে অবসাদ থেকে মুক্তি দিতে পারে। কোন একটি কাজ করতে গেলে আমরা যখন বিরক্ত হয়ে পড়ি। ঠিক তখনই

যদি কিছুক্ষণের জন্য বিনোদন নিয়ে আমাদের ওই কাজটি পুনরায় করতে যাই তখন আর বিরক্ত বোধ হবে না। নিজেকে আনন্দ দেওয়া বা নিজেকে প্রফুল্ল রাখতে আমরা বিভিন্ন ধরনের

বিনোদন মাধ্যম ব্যবহার করি খেলাধুলা করি, মানুষের সাথে গল্প করি, কেউ নেটদুনিয়া বিভিন্ন ধরনের ভিডিও দেখি। ডিজিটাল এই যুগের নেট দুনিয়ার ভিডিও বেশি দেখা হয় আর

নেট দুনিয়া ভিডিও গুলো সত্যিই অসাধারন হয়। যা মানুষকে সহজে হাসাতে পারে। আমরা আমাদের জীবন সহজ এবং আনন্দময় করতে আমরা নেট দুনিয়ার বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস ব্যবহার করি। আর

এই ডিভাইস গুলো ব্যবহার করে আমরা নিজেকে আনন্দে রাখতে পারি। সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায় একটি ছেলে বাঘের মুখোশ পড়ে মহিষকে ভয় দেখাচ্ছে। বর্তমানে এই ভিডিওটি নেটদুনিয়া তুমুল পরিমাণে ভাইরাল হয়ে যায়। আর

এই ভিডিওটি মানুষের মনে ব্যাপক সাড়া ফেলে। এখন জেনে নেই মূলত এই ভিডিওটি কি ঘটেছে। একটি মাঠে অনেকগুলো মহিষ ঘাস খাচ্ছিল এবং তাদের মনমতো করে তারা বিতরণ করছিল। তখনই একটি দুষ্টু ছেলে সেই মহিষের মাঠে চলে যায়। ওখানে একটু জঙ্গলের মতো ছিল। ছেলেটি সেই জঙ্গলের পাশে এসে দাঁড়ায়।

এবং তার আগে থেকে পরিকল্পনা করা মুখোশটি নিয়ে আসে। এরপর দুষ্টু ছেলেটি মুখোশটি পড়ে নেয়। অপেক্ষা করতে থাকে কখন মহিষ তার কাছে আসবে এভাবে সে অনেকক্ষণ অপেক্ষা করতে থাকে। অবশেষে তার অপেক্ষার অবসান হয়েছে। একটি মহিষ হঠাৎ এই দুষ্টু ছেলে উপস্থিতি বুঝতে পারে। এরপর মহিষটি ছেলেটির দিকে আসতে থাকে। ঠিক তখনই দুষ্টু ছেলেটি সে মুখোশ পরা অবস্থায় মহিষকে ভয় দেখায়। মূলত এটি বাঘের মুখোশ ছিল তাই মহিষগুলো খুব ভয় পায়। কারণ বাঘ শিকার করে খায়।

আর তখন মহিষ টি ভয় পেয়ে বিপরীত দিকে পালাচ্ছিল এবং মহিষ বুঝতে পারে আসলে এটি নকল ছিলো। নতাই সে আবার পিছন দিক থেকে ছেলেটির দিকে অগ্রসর হচ্ছিল ঠিক তখনই ছেলেটি নিজেই ভয় পেয়ে যায়। এবং সে আস্তে আস্তে করে হেঁটে মহিষগুলো সামনে থেকে নিজের জীবন নিয়ে পালিয়ে যায়। নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি ব্যাপক সাড়া ফেলে কারণ এ ধরনের দুষ্টু-মিষ্টি ফানি ভিডিওগুলো মানুষ প্রচুর পরিমাণে দেখে এবং মানুষ প্রচুর পরিমাণে আনন্দ উপভোগ করতে পারে।

নেট দুনিয়া এ ধরনের প্রচুর পরিমাণে ভিডিও পাওয়া যায় তবে সাধারণ মানুষকে সতর্কতার জন্য এটাই বলব যে আপনারা কেউ এ ধরনের মুখোশ পরে কোন ভয়ঙ্কর প্রাণীর দিকে অগ্রসর হবেন না কারণ যেকোন সময় যেকোন বিপদে সে যেতে পারে তাই নিজের নিরাপত্তার কথা ভেবে এ ধরনের কর্ম থেকে নিজেকে বিরত রাখুন। আর আপনারা যদি আমাদের এই ও মজাদার ভিডিওটি দেখতে চান তাহলে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

ভিডিও লিংক

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *