স্বাদ ও গন্ধ ঠিক রেখে ইলিশ মাছ সংরক্ষন করুন দীর্ঘদিন পর্যন্ত , মনে হবে একদম তাজা ইলিশ , রইল স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন : আমাদের দেশের সুস্বাদু মাছ গুলাের মধ্যে একটি হচ্ছে ইলিশ মাছ । যা আমরা বছরের নির্দিষ্ট সময়ে

সচরাচর পেয়ে থাকে । সারা বছর পাওয়া গেলেও নির্দিষ্ট সময় গুলােতে অধিকাংশ পাওয়া যায় এবং অন্যান্য সময় সচরাচর পাওয়া যায় না । তাই আমরা

সারা বছর ইলিশ খাওয়ার জন্য বছরের যে সময় ইলিশ সচরাচর পাওয়া যায় তখন কিনে সংরক্ষণ করে থাকে । কিন্তু আমরা

অনেকেই সংরক্ষণ করার ভাল পদ্ধতি জানিনা । যার ফলে নির্দিষ্ট সময়ের পর মাছ গুলাের স্বাদ এবং গন্ধ নষ্ট হয়ে যায় । এর জন্য প্রয়ােজন

সংরক্ষণ করার সঠিক পদ্ধতি । আজকের ভিডিওটিতে দেখানাে হয়েছে কিভাবে ইলিশ মাছ দীর্ঘদিন স্বাদ এবং

গন্ধ ঠিক রেখে সংরক্ষণ করবেন।ভিডিওটিতে যে পদ্ধতিতে সংরক্ষণ করা হয়েছে তা নিচে বিস্তারিত বর্ণনা করা হলাে । সংরক্ষণ এর জন্য আমি

এখানে কিছু ইলিশ মাছ নিয়ে নিয়েছি । আর দেখতে পাচ্ছেন উপরে কিন্তু যথেষ্ট পরিমাণে পানি আছে । বাজার থেকে

যখন ইলিশ মাছটা আনবেন তারপরে প্রয়ােজনে ধুয়ে নিতে পারেন । তারপরে যে পানি টা আছে সেটা আমরা একটা তােয়ালে দিয়ে অথবা টিস্যু দিয়ে মুছে নেব । ভালাে করে যতসম্ভব পানিটা নিয়ে নিলে ভালাে হয় । তাহলে আর আইস জমে না । আমি আমার ফ্রিজের অনুপাতে অথবা ঝুড়িতে রাখবাে সেজন্য কেটে নিয়েছি । এখানে আমি যেগুলা নিয়েছি কিছুতে ডিম আছে ডিম ছাড়া ।

নিজের পছন্দমত নিয়ে নিতে পারেন আমি এসেছি ইলিশ মাছটা নিয়ে নিলাম । তারপরে আমি যতটুক আমরা খাওয়ার সময় ব্লেজ টুকু কাটে রান্না করার সময় বা বানানাের সময় ঠিক ততটুকু আমি কেটে নিব ।এতে ফ্রিজে ঢুকাতে সুবিধা হবে । তারপর এগুলােকে ফ্রিজে ঢুকানাের পূর্বে পলিথিন দিয়ে ভালাে করে মুড়িয়ে নিতে হবে । বাজারে পলিথিন গুলাে বড় ছােট কিনতে পাওয়া যায় । আমি বড় দেখে নিয়েছি ইলিশের সাইজ অনুযায়ী তারপর একটা করেছেন নিয়ে নিব ।

তারপরে ইলিশ মাছটা ঢুকিয়ে দিব । তারপর ভিতরে যে হাওয়াটা থাকে সেটা সুন্দরভাবে আমাদের বের করে নিতে হবে।পলিথিনের মধ্যে কোন ভাবে হাওয়া থাকতে পারবে না , এতে সংরক্ষণ ভালাে হবে না । তারপরে আমরা যদি এটা এক এক করে রেখে দেই , মানে ফ্রিজে ভাঁজে ভাঁজে রেখে দিই তাহলে কিন্তু অনেক সময় দেখা যায় মাছ – মাংস একত্রিত হয়ে গেলে যখন আবার নামানাের সময় হয় তখন দেখা যায় পলিথিন গুলাে । একটি আরেকটির সাথে লেগে ছিড়ে যায় ।

সেজন্য আমরা করতে পারি কি দুটো পলিথিন দিয়ে রাখতে পারি অথবা এই জায়গায় একটা অথবা পলিথিনের মুখ রশি কিংবা রাবার দিয়ে ভালাে করে ভেবে নিলে ভালাে হয়।এবং কোন জায়গায় । যাতে বাতাস না ঢুকতে পারে এভাবে করে আমি সবগুলাে আগে পেচিয়ে নিচ্ছি । তারপর একটি ঝুড়ির মধ্যে সুন্দর করে সাজিয়ে ফ্রিজে দীর্ঘ সময়ের জন্য সংরক্ষণ করতে পারে ।

এই পদ্ধতিতে সর্বোচ্চ ছয় থেকে সাত মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায় । b আর যদি মনে করে আমি একমাস পরে খাবাে বা 15 দিন পরে খাবাে তাহলে তাে নিচ থেকে বের করা অসম্ভব হয়ে পড়ে । তখন আমরা করতে পারি কি বড় আকারের পলিথিনে আমরা দু তিনটে করে রেখে দিব । এতে খাওয়ার সময় পিছে থেকে বার করা খুবই সহজ হয়ে থাকে ।

অন্যথায় ফ্রিজের মধ্যে থাকা অন্যান্য মাছ – মাংস গুলাের সাথে এমন ভাবে লেগে যাবে যে বের করার সময় পলিথিন গুলাে ছিড়ে যেতে পারে । এই পদ্ধতিতে মাছ সংরক্ষন করলে কিং পর্যন্ত স্বাদ এবং গন্ধ অপরিবর্তিত রেখে সুন্দর ভাবে সংরক্ষন করা যাবে । সংরক্ষণ করে ভাল ফলাফল পেতে উপরের স্টেপ গুলাে ফলাে করতে হবে । এবং ভিডিওটি দেখতে পারেন ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *