অমানবিকতার শিকার শ্রীলেখা, লাইভে এসে কান্নাকাটি

শ্রীলেখা মিত্র শুক্রবার দুপুরে আকস্মিক লাইভে এসে কান্নাকাটি করে হতবাক করে দেন নেটিজেনদের। লাইভে এসে

তিনি বলছিলেন, আমি অভিনয় ক্যামেরার সামনে করি, এমনিতে আমি অভিনয় করতে পারি না। বাবা মারা যাওয়ার পরে

এমনিতে আমার ভালো লাগছিল না। এই ফ্ল্যাট আমি নিয়েছিলাম। এখন এটা ছেড়ে

চলে যাবো আমি। তিনি জানান, আবাসনের প্রতিবেশীদের আক্রমণের শিকার হয়েছে। কারণ,

তার সারমেয়প্রীতি।  তারা হুমকি দিয়েছেন, শ্রীলেখা যদি কুকুর পোষা বন্ধ না করেন তা হলে তার বাড়ির সামনে সবাই আবর্জনা ফেলবেন। বিষ খাওয়াবেন তার পোষ্যদের! পড়শিদের অতর্কিত রূঢ় আচরণে নতুন করে যেন রক্তাক্ত অভিনেত্রীর মন।

তিনি পুরো ঘটনা জানিয়েছেন লাইভে। অঝোরে কেঁদেছেন। প্রতি কথায় তার তীব্র অভিমান। পড়শিদের প্রতি অভিযোগ।  উল্লেখ্য, বাবাকে হারিয়েছেন সেপ্টেম্বর মাসেই। এখনও যেন বাবার চলে যাওয়াটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না শ্রীলেখা মিত্র।

তার ফেসবুক পেজে চোখ বুলোলেই বোঝা যাবে সেকথা। বাবার ছবি থেকে কথা, নানান স্মৃতি উঠে এসেছে সেখানে। না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেও বাবাকে যেন কিছুতেই কাছছাড়া করতে চাইছেন না এই টলি-অভিনেত্রী ।

এখনও বাবার সঙ্গে নিজের কথা চালিয়ে যান। রোজ, প্রতিদিন। রোজ বাবার ফোনে ভয়েস রেকর্ড করে পাঠান। ফেসবুকে করা সেই পোস্টে নিজেই একথা লিখেছেন শ্রীলেখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.