ঘরে তখন ১৫ জন ছিলো,এই ১৫ জনের সামনে ন’গ্ন হলেন এই অ’ভিনেত্রী,জানালেন ভয়ংকর অভিজ্ঞতা(ছবিসহ)

গায়ে একটাও সুতো নেই। চোখে মুখে ভয়, আতঙ্ক। তার সেই মুখটাই ছড়িয়ে পড়েছিল নেট দুনিয়ায়। মুহূর্তে

ভাই’রাল হয়ে গেলেন মালায়লম অ’ভিনেত্রী অমলা পাল। রত্না কুমা’র পরিচালিত তামিল ‘আদাই’ ছবিতে একজন ধ’র্ষিতার

চরিত্রে অ’ভিনয় করেছেন মালায়লাম এই অ’ভিনেত্রী। চরিত্রের প্রয়োজনেই ক্যামেরার সামনে ন’গ্ন

হতে হয়েছিল তাকে।‘দ্য হিন্দু’কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে সেই শ্যুটিংয়ের অ’ভিজ্ঞতাই তুলে ধরলেন। অমলা বলেন,

‘পরিচালক আগেই জানিয়েছিলেন যে গায়ে এক ধরণের সূক্ষ পোশাক থাকবে। আমি তখন তাকে বলি, এ নিয়ে

কিচ্ছু চিন্তা করতে হবে না।’  অমলা জানান, নির্দিষ্ট সেই দিনে তিনি যখন স্পটে পৌঁছান তখন কিন্তু

মানসিকভাবে খুবই চাপে ভুগছিলেন অমলা। বলেন, ‘আমি খুব দুশ্চিন্তা করছিলাম। ভাবছিলাম কী’ হতে চলেছে সেটে, কী’ ভাবে শ্যুট হবে, কে কে থাকবে?’ তবে ওই এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা আটোসাঁটো করা হয়েছিল ওই দিন। অমলা জানান,

শ্যুটিংয়ের সময় ঘরে ১৫ জন লোক ছিলেন। তবে ক্রু মেম্বারদের উপর ভরসা না থাকলে যে কাজটা তিনি কোনওদিনই করতে পারতেন না তাও জানান অমলা।

‘আদাই’ শুরু হওয়ার আগে এমনকি ইন্ডাস্ট্রির উপর এতটাই হতাশ হয়ে পড়েছিলেন অমলা, যে সিনেমা ছেড়ে দেওয়ার কথাও ভেবেছিলেন। প্রাথমিকভাবে ‘আদাই’-এর গল্পও তার ভাল লাগেনি।

তবে শেষ পর্যন্ত ‘আদাই’ করতে রাজি হন অমলা। তার ফলাফল অবশ্য বেশ স্বস্তিদায়ক হয়েছে নায়িকার কাছে। মুক্তি পাওয়ার আগেই তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে ‘আদাই’।

Leave a Reply

Your email address will not be published.